1. tistanewsbd2017@gmail.com : Tista24 :
July 23, 2021, 3:45 pm

জলঢাকায় প্রাথমিক শিক্ষকের অসৌজন্যমূলক আচরণে সাংবাদিকের অভিযোগ

রবিউল ইসলাম রাজ, জলঢাকা প্রতিনিধিঃ
  • Update Time : Monday, February 15, 2021
  • 149 Time View

নীলফামারীর জলঢাকায় তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিকদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ ও স্থানীয় এক গ্রামপুলিশকে মারধরের অভিযোগ এনে ইউএনও ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোতে অভিযোগ করেছেন এক সাংবাদিক। অভিযোগকারী সাংবাদিকের নাম আব্দুল মালেক। তিনি পল্লীটিভি ও দৈনিক গনমুক্তি পত্রিকায় কর্মরত আছেন। সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারী) সকালে উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কার্যালয়ে গিয়ে এ অভিযোগ করেছেন। লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার কৈমারী ইউনিয়নের মৌজা শৌলমারী আলসিয়া পাড়া চরভরট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক গাজিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠানের গাছ কর্তন,ব্যাপক অনিয়ম,প্রতিষ্ঠানের জমি দখলের সহযোগিতার অভিযোগের তথ্য সংগ্রহের জন্য গত ৬ ফেব্রুয়ারী শনিবার দুপুরে সরেজমিনে যান ওই সাংবাদিক ও তার সহকর্মীরা। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কৈমারী ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ সহিদুল ইসলামকে ডেকে নিয়ে কর্তনকৃত গাছের ছবি তুলতে গিয়ে ওই শিক্ষকের রোষানলে পড়ে সাংবাদিকরা। অভিযোগকারী সাংবাদিক জানায়,আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক তার কিছু দুষ্কৃতকারী লোকজনকে সাথে নিয়ে এসে আমাদের উপর চড়াও হয় এবং অশোভনীয় ও অশ্লীলভাষায় গালিগালাজের একপর্যায়ে সঙ্গে থাকা গ্রামপুলিশকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। যার ভিডিও অন্য সাংবাদিক ভাইয়েরা মোবাইল ফোনে গোপনে ধারন করেছে। ভিডিও দেখলে বোঝা যাবে ওই শিক্ষকের আচরণ। এ বিষয়ে উপজেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দি ডেইলি নিউনেশনের সাংবাদিক শাহজাহান কবীর লেলিন জানায়,আমি ভিডিও দেখেছি। যেখানে শিক্ষকরা মানুষ গড়ার কারিগর। শিক্ষকদের কাছ থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদের সন্তানেরা একদিন দেশ ও জাতী গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সেখানে কী করে একজন শিক্ষকের আচরণ এমন হয়? অভিযুক্ত শিক্ষকের এই আচরণ পুরো শিক্ষক সমাজকে কলঙ্কিত করেছে। আমি মনে করি এই শিক্ষকের বিচার হওয়া দরকার। জলঢাকা প্রেসক্লাবের সদস্য ও মানবজমিনের সাংবাদিক সানোয়ার হোসেন বাদশা বলেন,এই শিক্ষকের আচরণে পুরো সাংবাদিক সমাজ ক্ষুব্ধ। এমনটি আমরা কখনো শিক্ষকের কাছ থেকে আশা করি না। এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার নুর মোহাম্মদ বলেন,বিভাগীয় তদন্ত করে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এব্যাপাওে জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ নবেজ উদ্দিন সরকার জানান, একজন শিক্ষকের এরকম আচরন করা ঠিক হয়নি। অভিযোগের অনুলিপি পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Jaldhaka IT Park
Theme Customized By LiveTV